1. admin@dailyfulbariasangbad.com : admin :
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
দুই ঘণ্টার চেষ্টায় পেট্রোলের দোকানের আগুন নেভালো ফায়ার সার্ভিস উপজেলা পরিষদের উন্মুক্ত নির্বাচনে সুযোগ নিতে চান ফুলবাড়িয়ার যুবলীগ নেতা রাকিব প্রশাসনকে দুর্নীতিমুক্ত-স্বচ্ছ।। জনবান্ধব করতে রাত-দিন কাজ করছেন ময়মনসিংহের ডিসি জাগ্রত আছিম গ্রন্থাগার এর ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উৎযাপন সরকারি প্রতিষ্ঠানের সাইনবোর্ডে ভুল বানানের ছড়াছড়ি, বাদ যায়নি বাংলা একাডেমিও ময়মনসিংহে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে ট্রেনের যাত্রী নিহত শহীদ মিনারের স্থপতিকে কেউ স্মরণ করেনি ময়মনসিংহে সন্ত্রাসী ‘পুইট্টা রাজুকে’ কুপিয়ে হত্যা জিআই পন্য হিসেবে স্বীকৃতি পেল ময়মনসিংহের মুক্তাগাছার মন্ডা ময়মনসিংহে ডিবির অভিযানে হেরোইন ও ইয়াবাসহ চারজন গ্রেফতার

ফুলবাড়িয়ায় হুমকীর স্বীকার তদন্ত কর্মকর্তা

  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ৮৬ বার পঠিত

মোঃ সাবিউদ্দিন: জমি সংক্রান্ত বিরোধের অভিযোগ তদন্ত করতে গিয়ে বিবাদির লোকজনের হুমকী-ধামকীর স্বীকার হয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা। এ ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার বিকেলে উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের হাসেনের মোর এলাকায়। ফুলবাড়িয়া থানায় তদন্ত কর্মকর্তা এস আই শাহিনুল ইসলাম এ ঘটনায় সাধারন ডাইরী করেছেন।

গত ১৯ জানুয়ারী জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে বাদী ও বিবাদীদের মাঝে যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষসহ দাঙ্গা হাঙ্গামার ঘটনা ঘটতে পারে এমন ঘটনায় বাদি হয়ে ভবানীপুর টানপাড়া এলাকার বাসিন্দা বয়োবৃদ্ধ ইউনুছ আলী একই গ্রামের খাইরুল ইসলাম রতনগংকে বিবাদী করে অভিযোগ থানায় দেন।

শান্তি শৃংখলা রক্ষায় ফুলবাড়িয়া থানার ওসি রাশেদুজ্জামান ঘটনাটি তদন্তের দায়িত্ব দেন এস আই শাহিনুল ইসলামকে। গত শুক্রবার বিকেলে ভবানীপুর ইউনিয়ন বিট অফিসার এস আই রাশেদ মোশারফকে সংগে নিয়ে ঘটনাটি তদন্তে যান তদন্ত কর্মকর্তা শাহিনুল ইসলাম। তদন্তকালে সংশ্লিষ্ঠ কর্মকর্তা বাদি-বিবাদিসহ স্থানীয় গন্য্যমান্য ব্যাক্তিবর্গের উপস্থিতিতে বিবদমান পরিস্থিতির আলোকে আইনশৃংখলা ও শান্তিশৃংখলা রক্ষায় উভয় পক্ষকে অনুরোধ করেন।

এ সময় তদন্ত কর্মকর্তার মোবাইল ফোনে আচমকা কেরানীগঞ্জ থানার এক এস আইয়ের পরিচয়ে মোবাইল ফোনে তদন্তে কেন গেলেন, আপনার যাওয়ার কোন বিধান আছে নাকি! এসব বিষয়ে হুমকী- ধামকীসহ আইনগত ব্যবস্থা নিলে চাকরীর ক্ষতি করবে এমন হুমকী দেন। পরবর্তীতে তদন্ত কর্মকর্তা জানতে পারে মোবাইলে হুমকীদাতা আর কেউ নয় বিবাদী খাইরুল ইসলাম রতনের ভাতিজা মাহামুদুল স্বজল। মাহামুদুল হাসান তার পরিচয়ে কেরানীগঞ্জ সার্কেল অফিসের ইনসপেক্টর হিসেবে কর্মরত আছেন বলে তদন্ত কর্মকর্তা শাহিনুল ইসলাম জানতে পারেন।

তদন্ত কর্মকর্তা অভিযোগ করেন, মোবাইল ফোনে হুমকী শেষে তদন্ত কর্মকর্তা থানায় ফিরে আসলে তার হোয়াটসআপ নাম্বারে ঢাকার আরটিভির ক্রাইম রিপোর্টার শেখ ফরিদ পরিচয়ে তার মোবাইল নাম্বার থেকে ম্যাসেজ এবং ডাবিং করা কিছু অডিও ক্লিপ পাঠিয়ে তার কথা না শুনলে চ্যানেলে নিউজ করে দিবে এমন হুমকী দেয়। ভবানীপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ জবান আলী সরকার বলেন, আমার ইউনিয়ন পরিষদে ইউনুছ আলী জনৈক রতন মাস্টারের বিরুদ্ধে জমি সংক্রান্ত অভিযোগ দিলে গ্রাম্য আদালতের সালিশ বৈঠকে জোরপূর্বক দখল করে নেয়া ইউনুছ আলীর জমি উদ্ধার করে দেই।

সালিশের পরদিন গ্রাম্য আদালতকে তোয়াক্কা না করে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে রতন মাষ্টারগং পুনরায় ঐ জমি দখলে নিয়ে নেয়।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক ফুলবাড়ীয়া সংবাদ
Theme Customized By Shakil IT Park
error: Content is protected !!